মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের সুযোগ মার্চে

প্রকাশিত: ১২:২৬ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৬, ২০১৬

মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের সুযোগ মার্চে

এসবিএন ডেস্ক: মোবাইল ফোন নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের (এমএনপি) প্রক্রিয়া মার্চ থেকে শুরু করার আশা প্রকাশ করেছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “আগামী মার্চের মধ্যে এমএনপি চালুর প্রক্রিয়া শুরু করতে পারব।”

মোবাইল ফোন নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলের কাজ কারা পাবে, সেই প্রক্রিয়া আরও ‘স্বচ্ছ’ করতে নীতিমালা সংশোধন ও পরিমার্জন করা হচ্ছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

“কারও কোনো রকম ‘কনফ্লিক্ট অফ ইন্টারেস্ট’ যেন না থাকে, তার উপর শতভাগ গুরুত্ব আরোপ করা হচ্ছে সংশোধনে।”

টেলিযোগাযোগ সচিব ফয়জুর রহমান চৌধুরী বলেন, “এমএনপি লাইসেন্স যে পাবে, শর্ত পূরণ করতে না পারলে তাদের লাইসেন্স বাতিলসহ প্রদত্ত অর্থ বাজেয়াপ্ত করার নিয়ম রাখা হচ্ছে সংশোধনে।”

নম্বর অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদলানোর বহু প্রতীক্ষিত সুযোগ তৈরীর নীতিমালায় (এমএনপি নীতিমালা) গত ২ ডিসেম্বর অনুমোদন দেয় অর্থ মন্ত্রণালয়।

এরপর এমএনপি অপারেটর নিয়োগের নিলাম প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা শুরু করে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি।

গুরুত্বপূর্ণ এই কাজের লাইসেন্স দেওয়ার নিলাম পদ্ধতি নিয়ে প্রশ্ন ওঠার প্রেক্ষাপটে নীতিমালা সংশোধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

এর আগে বছরের শুরুতেই গ্রাহকরা এ সুবিধা পেতে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছিলেন তারানা হালিম।

এদিকে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থার বিটিআরসি’র সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলের ব্যবহার এ বছর শুরু হবে জানিয়ে তারানা হালিম বলেন, বিটিআরসির তহবিলে ‘অলস পড়ে থাকা’ তহবিল দুর্গম এলাকায় টেলিযোগাযোগ সেবা সম্প্রসারণ, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে উদ্ভাবনী কাজে সহায়তা দেওয়া হবে। সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলে প্রায় ৭২৫ কোটি টাকা রয়েছে।

মাতৃভাষার প্রতি মর্যাদা জানিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে বাংলা ডোমেইন ডটবাংলা চালু করার পরিকল্পনার কথাও জানান প্রতিমন্ত্রী।

তিনি জানান, বাজারের আকারে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের বড় ২০টি দেশের টেলিযোগাযোগ খাতের প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে।

মোবাইল অপারেটরদের আন্তর্জাতিক সংগঠন জিএসএমএ গবেষণায় এ ঘোষণা এসেছে জানিয়ে তিনি এজন্য জনগণ ও অপারেটরদের ধন্যবাদ জানান।

এ সময় টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির ভাইস চেয়ারম্যান আহসান হাবিব খানসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।