মোবাইল সিম রি-রেজিষ্ট্রেশন ফি বাবত অবৈধভাবে ২০ টাকা করে আদায়ের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৮:০৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ২৬, ২০১৬

মোবাইল সিম রি-রেজিষ্ট্রেশন ফি বাবত অবৈধভাবে ২০ টাকা করে আদায়ের অভিযোগ

এসবিএন নিউজ, সুজ্জল আহমদ- ওসমানীনগর প্রতিনিধি: দেশব্যাপী বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সকল মোবাইল সিম ব্যবহারকারীদের রি-রেজিষ্ট্রেশন পক্রিয়া চলছে।

এই মোবাইল সিম রি-রেজিষ্ট্রেশনের জন্য নিজের ১ (এক) কপি পাসপোর্ট সাইজ ছবি, জাতীয় ভোটার আইডি কার্ডের ফটোকপি ও ব্যবহৃত সক্রিয় সিম নিয়ে নিকটস্থ মোবাইল অপারেটর বায়োমেট্রিক সেন্টারে গিয়ে তথ্য হালনাগাদ করতে হবে এবং তা সম্পুর্ণ ফ্রি।

কিন্তু অনেক স্থানে বিভিন্ন মোবাইল কোম্পানী কর্তৃক অনুমোদিত কিছু অসাধু অপারেটর ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে মোবাইল সিম রি-রেজিষ্ট্রেশন বিনামুল্য সেবার পরিবর্তে অবৈধভাবে সবার নিকট থেকে ২০ টাকা করে আদায় করছে এ রকম অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ওসমানীনগরে গ্রাহকদের অভিযোগের ভিত্তিতে এসবিএন প্রতিনিধি সরেজমিন ঘুরলে এর সত্যতাও পাওয়া যায়। বিষয়টি গ্রাহকদের মনে চরম ক্ষোভের জন্ম দিলেও তা দেখার কেউ নেই।

জানা যায়, মোবাইল অপারেটরগুলো ওসমানীনগরে তাদের অনুমোদিত ২ শতাধিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে কোন ধরণের ফি ছাড়া বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে গ্রাহকদের সিম রি-রেজিষ্ট্রেশনের কাজ শুরু করেছে।

কিন্তু ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুরের তাহের টেলিকম, রহমানিয়া এন্টারপ্রাইজ, আমিনুল মোবাইলঘর, মা টেলিকম, মাহিন টেলিকম, সামিয়া টেলিকম, গোয়ালাবাজারের মাছুম টেলিকম, বুরুঙগা বাজারে ও হাজীপুরের ইদ্রিছ লাইব্রেরীসহ বিভিন্ন অনুমোদিত প্রতিষ্ঠান সিম রেজিষ্ট্রেশনের ক্ষেত্রে ২০ টাকা হারে ফি আদায় করছে।

বিশেষ করে এই এলাকায় গ্রামীণফোনের গ্রাহক বেশী থাকায় তারা পড়েছেন চরম বিপাকে।

সরেজমিনে তাজপুরবাজার ঘুরে দেখা যায়, ব্যবসায়ীরা একত্রিত হয়ে সিম রি-রেজিষ্ট্রেশনের জন্য ২০ টাকা ফি ধার্য্য করেছেন।