মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মায়ের অভিযোগে ৪ মাস পর কবর থেকে পুত্রের লাশ উত্তোলন

প্রকাশিত: ১০:১৬ অপরাহ্ণ, জুন ৯, ২০২২

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে মায়ের অভিযোগে ৪ মাস পর কবর থেকে পুত্রের লাশ উত্তোলন

কপিল দেব স্টাফ রিপোর্টার

 

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নে ৪ মাস পর কবর থেকে এক যুবকের লাশ উত্তোলন করা হয়।কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর ইউনিয়নের ভাদাইরদেউল গ্রামের মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা মহব্বত উল্লা এর পুত্র নজরুল ইসলাম (৩২) কে  শশুর বাড়ির লোকজন হত্যা করেছে স্বজনদের এমন অভিযোগের পর আদালতের নির্দেশে আজ ( ৯ জুন) বৃহস্পতিবার দুপুরে স্থানীয় বড়চেগ  বিক্রমপুর  কবরস্থান থেকে মৃতদেহ উত্তোলন করা হয়।

 

মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য ওই যুবকের  লাশ নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে নিহত নজরুল ইসলাম এর  ভাই মোঃ বদরুল ইসলাম  জানান, তার ভাইকে তার স্ত্রী ও শশুর বাড়ির লোকজন পরিকল্পিত ভাবে  হত্যা করেছে।  নিহত নজরুল ইসলাম  কমলগঞ্জ উপজেলার আলিনগর ইউনিয়নের চিতলিয়া গ্রামের রঙ্গু মিয়ার কন্যা মশকুরা বেগমকে বিয়ে করেন।

জানা যায়, গত ২৭ জানুয়ারী ২০২২ইং তারিখে শশুর বাড়িতে একটি অনুষ্টানে যোগ দিতে যান। গত ১ ফ্রেব্রুয়ারী ২০২২ইং তারিখে নজরুল ইসলাম এর বাড়িতে তার শশুর বাড়ির লোকজন খবর দেয়  দাঁতের ব্যাথায় নজরুল ইসলাম মারা গেছে। নিহতের পরিবাবারের লোকজনের সন্দেহ  হয় নজরুল ইসলামকে পরিকল্পিত ভাবে  হত্যা করা হয়েছে এমন অভিযোগ এনে গত ১৮/০৫/২০২২ইং তারিখে নিহতের  মা নুর জাহান বেগম  বাদি হয়ে মৌলভীবাজার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কোনও ময়নাতদন্ত ছাড়া লাশ দাফন করা হয়েছে এমন অভিযোগ করা হলে লাশ উত্তোলন করে ফের ময়নাতদন্তের নির্দেশ দেন আদালত।

এদিকে শমশেরনগর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মোশাররফ হোসেন জানান, আমরা আদালতের নির্দেশনা পেয়ে নিহত নজরুল ইসলাম এর লাশ উত্তোলন করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। আদালেতের নির্দেশে নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট  অর্ণব মালাকারের উপস্থিতিতে শমশেরনগর পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ মোশাররফ হোসেনসহ সঙ্গীয় ফোর্সসহ লাশ উত্তোলন করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

লাইভ রেডিও

Calendar

February 2024
S M T W T F S
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
2526272829