মৌলভীবাজারে মহিলা মাদ্রাসা পরিদর্শন করলেন জোহরা আলাউদ্দীন এমপি

প্রকাশিত: ৪:৩৪ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০২০

মৌলভীবাজারে মহিলা মাদ্রাসা পরিদর্শন করলেন জোহরা আলাউদ্দীন এমপি


মোঃ আব্দুল কাইয়ুম,মৌলভীবাজার:

মৌলভীবাজার জেলার নারী শিক্ষার অগ্রপথিক খাতুনে জান্নাত ফাতেমা (রাঃ) মহিলা টাইটেল মাদ্রাসা পরিদর্শন করলেন মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দীন এমপি।

রোববার (৫ জানুয়ারি) দুপুর ২টার দিকে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের আমন্ত্রণে সদর উপজেলার জগন্নাথপুর এলাকার ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি এই প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে গেলে মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ক্বারী ইদ্রিস ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মুঈজ উদ্দিন এবং সেক্রেটারী হাজী ইলিয়াসসহ শিক্ষকরা ফুলের তোরা দিয়ে অভিনন্দন জানান।

এর পর সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দীন এমপির সম্মানে স্থানীয় মাদ্রাসা মাঠে সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মাদ্রাসার শিক্ষা সচিব মাওলানা ওবায়দুল জালাল বখতিয়ারের সঞ্চালনায় ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মঈজ উদ্দিন এর সভাপতিত্বে সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন , জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান রেজিয়া রহমান, মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ক্বারী মোঃ ইদ্রিস, পুলিশ লাইনস জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা বজলুর রহমান চৌধুরী,জগন্নাথপুর শাহী ঈদগাহের খতিব ও পেশ ইমাম মাওলানা ফখরুল ইসলাম, সাংবাদিক মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটির সাধারন সম্পাদক হাজী মোঃ ইলিয়াস ও যুবলীগ নেতা মোঃ তাজুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্যর ব্যক্তিগত সহকারী রাশেদুল ইসলাম, মাদ্রাসার শিক্ষকসহ এলাকার বিশিষ্টজনেরা।

সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে মাদ্রাসার পক্ষ থেকে সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দীন এমপিকে ক্রেষ্ট তুলে দেয়া হয়।

অনুষ্ঠানে জোহরা আলাউদ্দীন এমপি বলেন,এঅঞ্চলে ধর্মীয় শিক্ষার প্রচারের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ হিসেবে জ্ঞানের আলো ছড়াচ্ছে এই নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান,এটি আমার জানা ছিলনা। প্রতিষ্ঠানটির বিভিন্ন কার্যক্রম ঘুরে দেখে আবেগআপ্লুত হয়ে তিনি বলেন আমার মায়ের নামে এই প্রতিষ্ঠান, তাই আজ থেকে আমিও এর একজন সদস্য।

এসময় তিনি অর্থনৈতিক টানাপোড়নে যাতে মাদ্রাসাটি পিছিয়ে না পরে সেজন্য মাদ্রাসার অবকাঠামো নির্মাণসহ অর্থনৈতিক সঙ্কট মোকাবেলায় প্রধামন্ত্রীর তহবিল থেকে বরাদ্ধ দিতে তিনি জোর চেষ্টা চালাবেন এবং মাদ্রাসার শিক্ষা কার্যক্রমে সর্বোচ্চ সহযোগিতা দেবেন বলে ঘোষনা দেন।

ছড়িয়ে দিন