যতদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা যাবে না:বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত: ১০:১২ অপরাহ্ণ, আগস্ট ২৭, ২০২৩

যতদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা যাবে না:বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

রেডটাইমস নিউজ ডেস্ক মৌলভীবাজার:

যতদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা যাবে না জাতীয় শোকদিবস ও মরহুম আব্দুল জব্বারের ৩১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মো. মাহবুব আলী এমপি।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মো. মাহবুব আলী এমপি বলেছেন, আব্দুল জব্বার ছিলেন বঙ্গবন্ধুর খুবই ঘনিষ্ঠ। ৭৫ এর ১৫ আগস্টের পর প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ ঘুরে দাঁড়িয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যাকারীরা ভেবেছিল এদেশে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ও চেতনা কোনদিন জেগে উঠবে না। কিন্তু তারা জানত না আব্দুল জব্বারের মত বঙ্গবন্ধুর অসংখ্য সহচর এদেশে রয়েছেন।

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ সংগঠিত হয়েছে। আব্দুল জব্বারের মত নির্লোভ, নিরহংকারীরা মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে মাত্র ৯ মাসে একটি সামরিক বাহিনীকে পরাজিত করে দেশ স্বাধীন করেছে।

তিনি রবিবার (২৭ আগস্ট) কুলাউড়ায় জাতীয় শোকদিবস ও মরহুম আব্দুল জব্বারের ৩১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, যতদিন মুক্তিযুদ্ধের চেতনা থাকবে ততদিন বঙ্গবন্ধুর নাম ইতিহাস থেকে মুছে ফেলা যাবে না। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। দেশ যখন উন্নয়নের মহাসড়কে ঠিক তখন বিএনপি জামায়াত নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু করছে। এদেশের উন্নয়নকে কেউ বাধাগ্রস্ত করতে পারবে না। এ সময় তিনি শমসেরনগরসহ সকল বিমানবন্দর অচিরেই চালুর আশ্বাস দেন।

বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট মাহবুব আলী এমপি বলেন,মেগা প্রকল্পের মাধ্যমে দেশ যখন উন্নয়নের মহাসড়কে ভাসছে ঠিক তখন নতুন ভাবে বিএনপি-জামায়াত নানা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। যাতে এ দেশের উন্নয়ন বাঁধাগ্রস্ত হয়। বঙ্গবন্ধুর অবর্তমানে তারই কন্যা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এসব অশুভ শক্তিকে মোকাবেলা করে আগামী নির্বাচনেও এ সরকারকে রাষ্ট্রক্ষমতায় রেখে উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রাখতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

বিকেল সাড়ে ৪টায় কুলাউড়াস্থ মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ অডিটরিয়ামে আব্দুল জব্বার ফাউন্ডেশন এই স্মরণসভার আয়োজন করে। এতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রীর প্রটোকল অফিসার আবু জাফর রাজু।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অলিলা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধুর প্রথম পদচারণা যে উপজেলায় হয়েছিল সেই কুলাউড়ায় তার সহযোগী হিসেবে ছিলেন আব্দুল জব্বার। তিনি বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধসহ সব আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিলেন। আজকের এই অনুষ্ঠান থেকে তাদের প্রতি আমি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করছি। দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতে ঘাতকেরা ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। কিন্তু তার ঘনিষ্ঠ সহচররা বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে নিরলসভাবে কাজ করেছিলেন। তার মধ্যে আব্দুল জব্বার অন্যতম।

কুলাউড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসম কামরুল ইসলামের পরিচালনায় স্মরণসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মিছবাহ উদ্দিন সিরাজ, সাবেক কেন্দ্রীয় সদস্য অধ্যাপক মো. রফিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজমল হোসেন, ওলিলা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জিল্লুর রহমান, কুলাউড়া উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ফজলুল হক খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অরবিন্দু ঘোষ ও শফিউল আলম শফি প্রমুখ।

লাইভ রেডিও

Calendar

April 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930