ঢাকা ১৮ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩রা শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১১ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি


যারা স্বাধীন স্বদেশ চায়নি, তারাই এখন দেশের ধ্বংস চায়: ওবায়দুল কাদের

redtimes.com,bd
প্রকাশিত ডিসেম্বর ৩১, ২০২০, ০৫:৩৮ অপরাহ্ণ
যারা স্বাধীন স্বদেশ চায়নি, তারাই এখন দেশের ধ্বংস চায়: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, যাদের হাত ধরে বাংলাদেশের স্বাধীনতা এসেছে, তারাই এদেশকে গড়ে তোলার লক্ষ্যে অবিরাম কাজ করছে।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি এদেশের ধ্বংসাত্মক রাজনীতির ধারক ও বাহক। যাদের হাত ধরে এসেছে স্বাধীন বাংলাদেশ, তারা ধ্বংস নয়, এদেশকে গড়ে তোলার লক্ষ্যেই কাজ করছে অবিরাম। প্রকারান্তরে যারা স্বাধীন স্বদেশ চায়নি, তারাই এখন দেশের ধ্বংস চায়।’
ওবায়দুল কাদের আজ বৃহষ্পতিবার সকালে তার সরকারি বাসভবনে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, গণতন্ত্রের এগিয়ে যাওয়ার পথে বিএনপি’ও নেতিবাচক ও অতিক্ষমতা কেন্দ্রিক রাজনীতিই প্রধান বাধা। বিএনপি এতদিন ‘না’ ছাড়া কিছুই দেখতে পেতো না,এখন ‘ধ্বংস’ দেখতে পায়।

সরকার নাকি গণতন্ত্র,অর্থনীতি ধ্বংস করে দিয়েছে, বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে সারাদেশে চলছে সমৃদ্ধির সোপানে নতুন উচ্চতা নির্মাণের নিরলস প্রয়াস। কিন্তু ধ্বংস নয়, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এখন সৃষ্টিশীল বাংলাদেশ বিনির্মানের মহাযজ্ঞ চলছে।

বিএনপি দেশকে পিছিয়ে দিতে চিরাচরিত পাকিস্তানি ভাবধারার দৃষ্টিসীমায় রাষ্ট্রের অর্জন আর সক্ষমতার সুবর্ণ রূপ দেখতে পায় না উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা শেখ হাসিনার অর্জনে প্রতিহিংসার আগুনে দগ্ধ হচ্ছে প্রতিনিয়ত। দেশে কোনো স্বৈরতন্ত্র নেই, আছে গণতন্ত্র, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ আর বাক-স্বাধীনতা, আর তাই বিএনপি প্রতিনিয়ত সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারছে,পারছে অবিরাম বিষোদগার করতে। দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই নিয়মিত নির্বাচন – উপনির্বাচন হছে এবং বিএনপিও নিয়মিত অংশ নিতে পারছে, জয়লাভও করছে বলেও জানান কাদের।

ওবায়দুল কাদের বলেন, গণতন্ত্রের শতফুল একদিনেই ফোটে না, এর জন্য প্রয়োজন নিরবিচ্ছিন্ন পরিচর্যার,আর এই গণতন্ত্রকে এগিয়ে নিতে বিএনপি কোন দায়িত্বশীল ভূমিকাতো রাখেইনি বরং পদে পদে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তিনি বলেন, নির্বাচনে অংশ নিয়ে বিএনপি জনরায় পাবার আগেই ফল প্রত্যাখ্যান করেছে,যা প্রকারান্তরে জনগণের রায়কেই অপমান করা।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, করোনা মহামারিতে শেখ হাসিনার মানবিক নেতৃত্বের কারণে একজন মানুষও না খেয়ে মরেনি, আর এ কারনেই বিএনপির কষ্টের কারণ।

তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে, উচ্চহারে প্রবৃদ্ধি, প্রবাসী আয়সহ সকল আর্থসামাজিক সূচকে ফিরে এসেছে ইতিবাচক ধারা।
বিশ্বসমাজ যখন দেশের প্রশংসা করে তখন বিএনপি ধ্বংস ছাড়া কিছু দেখতে পায় না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আসলে তাদের সমস্যা মনস্তাত্ত্বিক, তারা সৃষ্টিতে নয়,ধ্বংসাত্মক প্রবণতায় ভূগছে।

তিনি বলেন, জনগণ এখন আর সমালোচনার কাসুন্দি ঘাঁটা পছন্দ করে না,জনগণ উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে চায়। আত্মনির্ভরশীল জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেতে চায়। আর এজন্যই বিএনপির ধ্বংসাত্মক কর্মসূচি ও মিথ্যাচারে জনগণ সাড়া দেয় না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, পরিবর্তিত বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে রাজনীতিতে জনসম্পৃক্ত ইস্যু খুঁজে পাওয়ার ব্যর্থতা বিএনপি নেতৃত্বের অক্ষমতা ছাড়া আর কিছুই নয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

July 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031