যেখানে রাষ্ট্রের সঙ্গে ধর্মের কোনো সম্পৃক্ততা নেই

প্রকাশিত: ১:৪৭ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৬, ২০২০

যেখানে রাষ্ট্রের সঙ্গে ধর্মের কোনো সম্পৃক্ততা নেই

মীরা মেহেরুন

ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনার মধ্যবর্তী দক্ষিণ আমেরিকার একটি ক্ষুদ্রতম স্বাধীন ও ধর্মনিরপেক্ষ রাষ্ট্র উরুগুয়ে । যেখানে রাষ্ট্রের সঙ্গে ধর্মের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

স্প্যানিশ ভাষাভাষী এ রাষ্ট্রের ৫৮ শতাংশ খ্রীষ্টান ধর্মাবলম্বী হলেও সেখানে ক্রিসমাস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রীয় কোনো ছুটি দেয়া হয় না, ফ্যামিলি ডে হিসেবে সেদিন ছুটি দেয়া হয় ধর্মনিরপেক্ষতার নিদর্শন স্বরূপ। এবং উল্লেখ্য যে বাকী ৪২ শতাংশ তারা কোনো ধর্মে বিশ্বাস করে না।

অর্থনীতি মূলত মাংস, দুধ রপ্তানি আয়ের এবং ট্যুরিজম এর ওপর নির্ভরশীল।

২০১০-১৫ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির দায়িত্বে ছিলেন জর্জ মোজিকা যিনি সরকারি বিলাস বহুল বাসভবন ছেড়ে একটি জীর্ণ ভাঙ্গাচোরা গৃহে বাস করতেন এবং তাঁর প্রাপ্ত বেতনের প্রায় সকল অর্থ একটি চেরিটেবল ফান্ডে দান করে দিতেন।

আহা কী দৃষ্টান্ত!

গভীর দেশপ্রেম-মোহমুক্তি আর উন্নত মানস- মননশক্তি র সাধনা ছাড়া এরূপ ত্যাগে ব্রতী হওয়া যায় না।

বিলাস বহুল জীবনযাত্রায় অভ্যস্ত এই রাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতি পৃথিবীর ইতিহাসে সবচেয়ে দরিদ্র রাষ্ট্রপতি হিসেবে পরিচিত।

সবচেয়ে চমকপ্রদ তথ্য হলো বিলাসবহুল জীবনযাপনে অভ্যস্ত মানুষগুলোর এ দেশে দুর্নীতির হার ০ শতাংশ।

আহা, কী শান্তি শান্তি লাগে!
পৃথিবীতে এমনও রাষ্ট্রের অস্তিত্ব আছে!

ছড়িয়ে দিন