যে কারণে চীনের বিরুদ্ধে মামলা করলো যুক্তরাষ্ট্রের মিজৌরি

প্রকাশিত: ৪:০১ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

যে কারণে চীনের বিরুদ্ধে মামলা করলো যুক্তরাষ্ট্রের মিজৌরি


করোনাভাইরাস মহামারী বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার জন্য চীনের কর্মকর্তাদের দায়ী করে দেশটির সরকারের বিরুদ্ধে মামলা ঠুকে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মিজৌরি অঙ্গরাজ্য।

গার্ডিয়ান জানিয়েছে, রিপাবলিকান দলীয় অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্মিট ফেডারেল আদালতে মামলাটি দায়ের করেছেন ।

মামলার আর্জিতে বলা হয়েছে, বিশ্বজুড়ে প্রচুর মৃত্যু, দুর্ভোগ ও অর্থনৈতিক ক্ষতির জন্য চীনের কর্মকর্তারা দায়ী । এর শিকার মিজৌরিয়ানরাও হয়েছে।

লিখিত এক বিবৃতিতে অ্যাটর্নি জেনারেল স্মিট বলেছেন, চীন সরকার ভাইরাসটির বিপদ সম্পর্কে মিথ্যা কথা বলেছে এবং এর বিস্তারের গতি কমাতে যথেষ্ট পদক্ষেপ নেয়নি।

হুইসেলব্লোয়ারদের থামিয়ে দিয়ে কোভিড-১৯ এর সংক্রামক প্রকৃতি ও বিপদ সম্পর্কে বিশ্বকে মিথ্যা বলেছে চীন সরকার এবং ভাইরাসটির বিস্তার থামাতে তেমন কোনো পদক্ষেপ নেয়নি। এসব কর্মকাণ্ডের কারণে তাদের অবশ্যই জবাবদিহিতার আওতায় আনা উচিত।

তবে গার্ডিয়ানের মতে , এই মামলা কোনো ধরনের প্রভাব ফেলতে পারবে কিনা তা পরিষ্কার নয় ।

এ বিষয়ে ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের হেস্টিংস আইন কলেজের আন্তর্জাতিক আইনের অধ্যাপক চিমেন কাইটনার জানান, কিছু ব্যতিক্রম বাদে যুক্তরাষ্ট্রের আইন সাধারণত অন্য দেশের বিরুদ্ধে মামলায় বাধা দেয়।

কাইটনার সম্প্রতি ‘করোনাভাইরাসের জন্য মামলা করে চীনকে বিরক্ত করবেন না’ শীর্ষক একটি ব্লগ লিখেছেন। তিনি বলেন ,আইনি সমস্যাটি হল, এটি ঠিক সম্ভব নয় ।

আর মিজৌরি ডেমোক্রেটিক পার্টির নির্বাহী পরিচালক লরেন গেপফোর্ড চলতি বছর পুনর্নির্বাচনের জন্য দাঁড়ানো রিপাবলিকান অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়ের করা এই মামলাকে ‘লোক দেখানো পদক্ষেপ’ বলে অভিহিত করেছেন।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেম সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার কোভিড-১৯ এ মিজৌরিতে আরও ১৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় অঙ্গরাজ্যটিতে মৃতের সংখ্যা ২১৫ জনে দাঁড়িয়েছে আর এখানে করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ৯৬৩ জন।

ছড়িয়ে দিন