রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তরুণীকে গণধর্ষণ

প্রকাশিত: ২:০৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১২, ২০২১

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে তরুণীকে গণধর্ষণ

সুনামগঞ্জের ছাতকে রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে এক তরুণীকে (২১) গণধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার উপজেলার ভাতগাঁও ইউনিয়নের হাসেমপুর পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার সকালে ভুক্তভোগী নিজ বাড়ি থেকে তাঁর নানার বাড়ি যাওয়া জন্য রওনা দেন। পথে একই ইউনিয়নের বাসিন্দা মতিউর রহমান মতিন (২৬) ও দিলদার হোসেন (২৮) তাঁকে অপহরণ করে। পরে পার্শ্ববর্তী সিংচাপইড় ইউনিয়নের হবিপুর গ্রামে মতিউর রহমানের চাচাতো বোনের একটি বাংলো ঘরে নিয়ে তাঁকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরে একটি নৌকা দিয়ে ভুক্তভোগীকে একই ইউনিয়নের কামারগাঁও গ্রামের বিল্লাল হোসেন (২৬) এর বাড়িতে পাঠিয়ে দেন তাঁরা। পরে বিল্লাল ও কামরান (২৬) নামের ওই দুই যুবকও তাঁকে ধর্ষণ করে।

 

এ দিকে ভুক্তভোগীর পরিবার বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ শুরু করেন। পরবর্তীতে খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় বিল্লাল হোসেনের বাড়ি থেকে তাঁকে উদ্ধার করে তাঁর পরিবার। এ সময় ঘটনার জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন মতিউর রহমান মতিন ও দিলদার হোসেনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেন। পরবর্তীতে কামারগাঁও বাজারে অভিযান চালিয়ে বিল্লাল হোসেনকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ছাতক থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাজিম উদ্দিন জানান, মামলার প্রধান তিনজন আসামি পুলিশের হেফাজতে রয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে।

 

ছড়িয়ে দিন