শঙ্খ ঘোষের অংক কষা জীবনেও ‘প্রিয়দিন জন্মদিন’

প্রকাশিত: ১:০৮ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৬, ২০১৯

শঙ্খ ঘোষের অংক কষা জীবনেও ‘প্রিয়দিন জন্মদিন’


সালেম সুলেরী

শঙ্খ ঘোষের ‘অল্পস্বল্প কথা’। ২০১৬-১৭-এর নতুন বই। প্রকাশক কলকাতার ‘পাঠক’। উপহার দিয়েছিলেন আরেক খ্যাতিমান। কবি শ্যামলকান্তি দাশ। কবিসম্মেলন সাহিত্যপত্রের সম্পাদক। ‘পাঠক’-এর তিন উদ্যোক্তার একজন। সাক্ষাতে এসে তুলে দেন বই, ডায়েরী। কবি শংকর চক্রবর্তীও আছেন জড়িয়ে। একাধারে প্রকাশক এবং অনুপ্রেরণাদাতা। তেমনটিই লিখেছেন শঙ্খ ঘোষ। বইটিতে সিকিপাতার মেদহীন ভূমিকা। সর্ব্বোচ্চ পর্যায়ের বিনয়ও দেখিয়েছেন। অনেক দুর্লভ লেখা, সাক্ষাৎকার, স্মৃতিকথা। মন্ত্রমুগ্ধতায় পাঠের আনন্দ নিলাম। অথচ ভূমিকায় লিখেছেন উল্টোটি। ‘বই হিসেবে এর গ্রহণযোগ্যতা তেমন-কিছু নেই’।

শঙ্খ ঘোষ বিগত পঞ্চাশ দশকের কবি। পৈতৃকবাস বাংলাদেশের কবি-বিপুলার বরিশালে। জন্ম চাঁদপুরে,১৯৩২-এর ৫ ফেব্রুয়ারি। একাধারে কবি, প্রাবন্ধিক, সমালোচক। অধিকাংশ কাব্যগ্রন্থের শিরোনাম অক্ষরবৃত্তে। দিনগুলি রাতগুলি, নিহিত পাতাল ছায়া। কিংবা- তুমিতো তেমন গৌরী নও। অথবা- পাঁজরে দাঁড়ের শব্দ। আছে- উর্বশীর হাসি, এ আমির আবরণ। কিংবা- ছেঁড়া ক্যাম্বিসের ব্যাগ। বহুল পঠিত- ছন্দের বারান্দা। কবিতার গতর-গঠন বিষয়ক প্রকাশনা। প্রথম তারুণ্যে পড়া অনিবার্য গ্রন্থ।

প্রথম সাক্ষাতের স্মৃতিটিও ঘটনাবহুল। ২০০৩-এর ১৩ এপ্রিল, কলকাতায়। পশ্চিমবঙ্গ বাংলা আকাডেমি মিলনায়তনে। ‘অনিরুদ্ধ আশি’- কলকাতা কবিতা উৎসবে। উদ্বোধক ছিলেন কিংবদন্তী লেখক সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। আর সমাপক কবি-নক্ষত্র শঙ্খ ঘোষ। বাংলাদেশের ১৩-১৪ কবিজন অংশ নেয়। সবার কবিতা শোনেন শঙ্খ’দা। কাছে ডেকে বলেন- জন্মমাটি এক। বাংলাদেশকে ধারণ করে আছো। নতুন পতাকা পেয়েছো তোমরা। আশি দশকের পতাকাদৌড় সফল হোক।

সেবার বাংলাদেশ পক্ষের কবিদের নেতৃত্ব দেই দু’জন। ‘অনিরুদ্ধ আশি’ সভাপতি প্রয়াত খোন্দকার আশরাফ হোসেন। আর প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক আমি (সালেম সুলেরী)। অন্যদিকে ভারতবাংলায় কবি কাজল চক্রবর্তী, চিত্রা লাহিড়ী। গত ২৮ জানুয়ারি ছিলো কাজল-কন্যা মোহনার বিয়ে। আশির্বাদ জানিয়ে গেলেন কীর্তিমান শঙ্খ ঘোষ। কাঁধে তখন ৮৭ বছরের ভাটি-ভারত্ব। বাংলাদেশের একুশে বইমেলাও কবির স্পর্শ পেলো। জাতীয় কবিতা উৎসবেও নিধু-নসিব পদার্পণ।

ভাষামাস ফেব্রুয়ারিতেই আরেক জন্মতিথিতে পা রাখলেন। ৫ ফেব্রুয়ারিতে ছুঁয়ে গেলেন গৌরববর্ষ ৮৭। বারবার দিনটি আসুক জন্মদিনের বারতা নিয়ে। প্রিয়কবিকে বাংলাদেশ-ভারত-প্রবাসবাংলার পক্ষে জন্ম-সম্ভাষণ।

শেষ করি কবির স্মারক কবিতার বহুচ্চারিত পংক্তিমালা দিয়ে।

মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে ♦শঙ্খ ঘোষ ♪√π√

একলা হয়ে দাঁড়িয়ে আছি তোমার জন্য গলির কোণে
ভাবি আমার মুখ দেখাব মুখ ঢেকে যায় বিজ্ঞাপনে।

একটা দুটো সহজ কথা বলব ভাবি চোখের আড়ে
জৌলুশে তা ঝলসে ওঠে বিজ্ঞাপনে, রংবাহারে

কে কাকে ঠিক কেমন দেখে বুঝতে পারা শক্ত খুবই
হা রে আমার বাড়িয়ে বলা হা রে আমার জন্মভূমি!

বিকিয়ে গেছে চোখের চাওয়া তোমার সঙ্গে ওতপ্রোত
নিওন আলোয় পণ্য হলো যা-কিছু আজ ব্যক্তিগত।

মুখের কথা একলা হয়ে রইল পড়ে গলির কোণে
ক্লান্ত আমার মুখোশ শুধু ঝুলতে থাকে বিজ্ঞাপনে। ♣

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ

Calendar

January 2021
S M T W T F S
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  

http://jugapath.com