শেখ হাসিনার জন্মদিন ও অনলাইন মিডিয়া রেডটাইমস

প্রকাশিত: ৯:৩২ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২১

শেখ হাসিনার জন্মদিন ও অনলাইন মিডিয়া রেডটাইমস

জোহরা রুবী

মানবতার জননী শেখ হাসিনার জন্মদিন গত কয়েক বছর ধরে যৌথ ভাবে করে আসছে অনলাইন
মিডিয়া রেডটাইমস ও বাংলাদেশ পোয়েট্রি এসোসিয়েশন । তবে বঙ্গবন্ধুকন্যার ৭৫ তম জন্মদিন উপলক্ষে এবারে রেডটাইমস একক ভাবেই মাসব্যাপি কর্মসূচি  নিয়েছে । গত ২ সেপ্টেম্বর আনুষ্ঠানিক ভাবে এর উদ্বোধন করেন বঙ্গবন্ধু কর্নারের প্রবর্তক অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামস-উল ইসলাম ।  উন্নয়নে উজ্জীবনে শেখ হাসিনা – শিরোনামে তাদের এই কার্যক্রম সারাদেশেই আলোড়ন তুলেছে । রাজধানীর বাইরে সিলেট শহরেও আয়োজন হয়েছে বিশাল অনুষ্ঠানের ।
উন্নয়নশীল বাংলাদেশের রূপকার বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে রেডটাইমস-এর মাসব্যাপী বিশেষ আয়োজন ‘উন্নয়নে উজ্জীবনে শেখ হাসিনা’র অংশ হিসেবে সিলেটে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। অনুষ্ঠানে বৃহত্তর সিলেটে শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড নিয়ে আলোকপাত করা হয়।

 

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৪ ঘটিকায় সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে বর্ণাঢ্য এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সিলেটের জনপ্রিয় ছড়াম্যাগাজিন ‘ছড়ালোক’।

 

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন। আলোচনা অনুষ্ঠানের মুখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন রেড টাইমস’এর সম্পাদক কবি সৌমিত্র দেব।

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন বলেন- ‘সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। গতকাল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এসডিজি লক্ষ্য অর্জনের জন্য ‘ক্রাউন অব জুয়েল’ হিসেবে আখ্যায়িত হয়েছেন।’

 

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিবন্ধিত জনপ্রিয় অনলাইন গণমাধ্যম রেডটাইমস এর মাসব্যাপী বিশেষ আয়োজন জননেত্রী শেখ হাসিনা’র উন্নয়নের তথ্য সারা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়বে বলে প্রত্যাশা রাখেন তিনি।

 

 

 

সিলেট মেট্রোপলিটন ল’ কলেজের উপাধ্যক্ষ ড.এম. শহীদুল ইসলাম-এর সভাপতিত্বে ও বাচিক শিল্পী সৈয়দ সাইমুম আনজুম ইভান-এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ‘দৈনিক উত্তরপূর্ব’র বার্তা সম্পাদক ও বাংলাদেশ টেলিভিশনের সিলেট প্রতিনিধি মুক্তাদীর আহমেদ মুক্তা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ছড়ার ছোটোকাগজ ‘ছড়ালোক’র সম্পাদক ছড়াকার শাহাদত বখত শাহেদ।

 

অনুষ্ঠানে জননেত্রী শেখ হাসিনা’র ওপর প্রকাশিত ম্যাগাজিন ‘শেখ হাসিনা উন্নয়নের এক ফিনিক্স পাখি’ ও দুটি বই ‘বঙ্গবন্ধুর মেয়ে তুমি শেখ হাসিনা ও ‘শেখ হাসিনার উক্তি বাঙালির শক্তি’ তুলে ধরা হয়।

৭৪ তম জন্মদিনে

মানবতার মা শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন প্রতিবারের মতো পালন করেছে বাংলাদেশ পোয়েট্রি এসোসিয়েশন ও রেডটাইমস ।

সোমবার সন্ধ্যা ৬টায় রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে কবিতা ক্যাফেতে শান্তি ও সম্প্রীতির এই কবিতা পাঠের আসর উদ্বোধন করেন একুশে পদকে ভূষিত জাতিসত্তার কবি মূহম্মদ মূরুল হুদা ।

সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় কমিটির সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এমপি । বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশের অন্যতম কবি আসাদ মান্নান ।

 

বক্তব্য রাখেন ও কবিতা পড়েন , কথাশিল্পী মাসুম হামিদ,কবি শেলী নাজ, বিজ্ঞান কবি হাসনাইন সাজ্জাদি, কবি অনজন কর , আনহার সামসাদ , লিটন হসেইন জিহাদ,নিউটন সরকার , পলা দেব ,ওয়াকিল আহমেদ চৌধুরী, ও এডভোকেট শ্যামসুন্দর সিনহা ।

সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পোয়েট্রি এসোসিয়েশনের সভাপতি কবি সৌমিত্র দেব ।
অনুষ্ঠানের শেষে শেখ হাসিনার মঙ্গল কামনা করে কেক কাটা হয় ।

৭৩ তম জন্মদিনে


গান ও কবিতা আবৃত্তির মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন উদযাপন করেছে ‘পোয়েট্রি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ’।

শনিবার সন্ধ্যায় জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে ‘শান্তি ও সম্প্রীতির কবিতা’ শীর্ষক এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সুপ্রিম কোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিক।

অনুষ্ঠানে শেখ হাসিনাকে নিবেদন করে কবিতা আবৃত্তি করেন এসোসিয়েশনের সদস্য পারভেজ চৌধুরী, জোয়ানা ইসলাম, শ্যাম সুন্দর সিনহা, জহুরা রুবি ও আনিস আহমেদ। গান গেয়ে শোনান পারভেজ দুলাল ও সানাম সুমি।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করে বিচারপতি মানিক বলেন, “অসাম্প্রদায়িক ও ধর্মনিরপেক্ষ বাংলাদেশ গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধু যেমন এই দেশ স্বাধীন করেছেন এটা সত্য, ঠিক তেমনি শেখ হাসিনা ক্ষমতায় না আসলে এই দেশ ধর্মান্ধ পাকিস্তান থেকে যেত।”

তিনি বলেন, “১৯৮১ সালে প্রধানমন্ত্রী যে উদ্দেশ্যে দেশে ফেরেন যে, যারা এই দেশটাকে পাকিস্তান বানাতে চায় তাদেরকে সমূলে উচ্ছেদ না করা পর্যন্ত থামা যাবে না এবং তিনি সেই উদ্দেশ্য একশ ভাগ সমুন্নত রেখেছেন।”

বাংলাদেশ রাইটার্স ক্লাবের সভাপতি কবি মুহাম্মদ নুরুল হুদা বলেন, “শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হয়ে যে পর্যায়ে এসেছেন, সাধারণত এই ভূমিকায় যারা থাকেন তারা ক্ষমতার স্বাদ পেতে পেতে যারা পুরুষ তারা বাঘ হয়ে উঠে, যারা নারী তারা বাঘিনী হয়ে উঠে এবং শেষ পর্যন্ত তারা কোন ধরনের ভবিষ্যতের দিকে যায়, এটা তারা নিজেরাও জানে না। আমরা বিশ্বের ইতিহাসে তা দেখতে পাই। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা এই মুহূর্তে স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি।”

তিনি বলেন, “শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে সত্যিকারের বাংলাদেশ গড়ার চূড়ান্ত পর্বে হাত দিয়েছেন। কেউ কেউ মনে করছেন, সেই হাত দিতে গিয়ে তার (শেখ হাসিনার) হাত পুড়বে কি না? তবে তার নিজের হাত পুড়বে কি না এ চিন্তা তিনি করছেন না।”

পোয়েট্রি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি কবি সৌমিত্র দেবের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বিএসএমএমইউয়ের হেপাটোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ডা. মামুন আল মাহতাব, সৈয়দ মহসিন আলী ফাউন্ডেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সানজিদা শারমিন বক্তব্য রাখেন।

ছড়িয়ে দিন