ঢাকা ১৯শে জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১২ই জিলহজ ১৪৪৫ হিজরি

শৈত্যপ্রবাহ বইছে বছরের শুরুতেই

redtimes.com,bd
প্রকাশিত জানুয়ারি ১, ২০২২, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ
শৈত্যপ্রবাহ বইছে বছরের শুরুতেই

 

শৈত্যপ্রবাহ । যেন হাত ধরে স্বাগত জানালো খ্রিস্টীয় নতুন বছর ২০২২কে । সদ্যবিদায়ী বছরের শেষ দিনেই উত্তরের দুই জেলায় শৈত্যপ্রবাহ বইতে শুরু করে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন, আগামী ৫ থেকে ৬ জানুয়ারি অর্থাৎ সপ্তাহজুড়ে থাকতে পারে শীতের দাপট, কারণ এ সময়ে তাপমাত্রা কমতেই থাকবে ।

এটা চলতি শীত মৌসুমে দ্বিতীয় দফায় শৈত্যপ্রবাহ। এর আগে ১৯ ডিসেম্বর ১০ জেলায় মৃদু থেকে মাঝারি ধরণের শৈত্যপ্রবাহ হয়। কিন্তু দুদিনের ব্যবধানে তা দূরও হয়ে যায়।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, তাপমাত্রা ৮ থেকে ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকলে তাকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ, ৬ থেকে ৮ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ বলে। আর তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে গেলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) দেশের কুড়িগ্রাম ও পঞ্চগড়ে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে নেমে যায়। বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৮ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলয়িসাস, কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ছিল ৯ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার পৌষের ১৭ তারিখ। (১ জানুয়ারি) সকালে রাজারহাটে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির ওপরে উঠে শৈত্যপ্রবাহ দূর হয়েছে জানিয়ে আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম বলেন, ‘তবে শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রির নিচে নেমে গেছে। শনিবার পঞ্চগড় ও শ্রীমঙ্গলে শৈত্যপ্রবাহ বইছে।’

তিনি বলেন, ‘আগামী ৫ থেকে ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত তাপমাত্রা কমার ধারা অব্যাহত থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। শৈত্যপ্রবাহ নতুন নতুন অঞ্চলে বিস্তৃতি লাভ করতে পারে। এ সময়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বইবে। তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রির নিচে নামার আশঙ্কা নেই। ৫ থেকে ৬ জানুয়ারির পর তাপমাত্রা একটু বাড়তে পারে।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

June 2024
S M T W T F S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30