ঢাকা ১৪ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩০শে আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৮ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি


সংসদ সদস্য ড.আব্দুস শহীদকে আইএসআই কর্তৃক হত্যার উড়োচিঠি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

redtimes.com,bd
প্রকাশিত জুন ১৯, ২০১৯, ০৬:৩৭ অপরাহ্ণ
সংসদ সদস্য ড.আব্দুস শহীদকে আইএসআই কর্তৃক হত্যার উড়োচিঠি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম , মৌলভীবাজার:

সম্প্রতি সাবেক চীফ হুইপ ও মৌলভীবাজার-৪ আসনের (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল) সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড. আব্দুস শহীদকে আইএসআই কর্তৃক হত্যার উড়োচিঠিতে ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে নিজের নাম ব্যবহার করা ও আইএসআই এর সংগঠক বলার প্রতিবাদে ঐ চিঠির বিষয়ে নিজের অবস্থান পরিস্কার করতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন কমলগঞ্জ উপজেলার দরগাপুর গ্রামের বাসিন্দা ও মৌলভীবাজার শহরের ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম লুলু।

বুধবার (১৯ জুন) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের সামনে লিখিত বক্তব্যে তিনি এ ঘটনায় নিজেকে সম্পুর্ণ নির্দোষ দাবি করে জানান , সংসদ সদস্য উপাধ্যক্ষ ড. আব্দুস শহীদকে হত্যার হুমকির বিষয়টি কয়েকটি মুদ্রণ, অনলাইনসহ সোস্যাল মিডিয়াতে তাকে ও তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে জড়িয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। ওই উড়োচিঠিটি তাঁকে ফাঁসানোর জন্য তাঁর শত্রুপক্ষ এই ষড়যন্ত্র করেছে। তাজুল উড়োচিঠির বিষয়ে প্রকৃত সত্য ঘটনা উদঘাটনের দাবি জানিয়ে বলেন আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মৌলভীবাজার হিজামা এন্ড রুকিয়া সেন্টারকে জড়িয়ে একটি চিঠির বরাদ দিয়ে মৌলভীবাজার-৪ (কমলগঞ্জ-শ্রীমঙ্গল) আসনের সংসদ সদস্য ড. উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদকে একটি উড়োচিঠিতে তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে মর্মে জানানো হয়। সেই চিঠিতে হত্যার ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে আমাকে ও হত্যার পরিকল্পনার স্থান হিসেবে আমার প্রতিষ্ঠান মৌলভীবাজার হিজামা এন্ড রুকিয়া সেন্টার এর নাম উল্লেখ করা হয়েছে। যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন ও ষড়যন্ত্রমূলক। আমার ধারনা আমাকে ফাঁসানোর জন্য আমার শত্রুপক্ষ এই ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি বলেন ওই চিঠিতে আমাকে বলা হয়েছে আই.এস.আই এর সংগঠক। আমি এর তীব্র নিন্দা ও জোর প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সাথে সাথে এ ঘোষণাও করছি এধরনের নিকৃষ্ট কর্মকান্ডের সাথে আমার বা আমার পরিবারের কোন সম্পর্ক কখনও ছিলনা ও বর্তমানেও নেই। আমি একজন সাধারণ ধর্মপ্রাণ মুসলমান। কিন্তু চিঠির ভেতরে আমার নাম ব্যবহার করে একজন সংসদ সদস্যকে হত্যার হুমকি প্রদানের পর আমি সমাজিকভাবে ও আইনগতভাবে ভোগান্তির শিকার হচ্ছি। সংবাদ সম্মেলনে আবেঘতারিত হয়ে তাজুল ইসলাম জানান পুলিশ ও গোয়েন্দা সংস্থা আমাকে নানা ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত করছে। এতে করে আমি ও আমার পরিবার মানসিকভাবে ভেঙে পড়ছি। আমি এ বিষয়ে সংস্থা গুলোকে সহযোগিতাও করছি। আমার ব্যবসায় লোকসান হচ্ছে। সামাজিকভাবে আমি প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছি। আমার ধারণা আমার কোন শত্রুরা বিপদগ্রস্থ করতে এই ষড়যন্ত্রে নেমেছে।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, তাজুলের নানা খন্দকার সৈয়দ আব্দুস সালাম ও ছোট ভাই লোকমান আহমদ প্রমুখ।

উল্লেখ্য গত ১৩ জুন আইএসআই কর্তৃক হত্যার হুমকি দিয়ে একটি উড়োচিঠি সংসদ সদস্য ড. আব্দুস শহীদ এর শ্রীমঙ্গলস্থ মিশন রোডের বাসার ঠিকানায় ডাক বিভাগ থেকে পৌছে। এর পর থেকে জেলা জুড়ে তোলপার সৃষ্টি হয় , এরপর থেকে সোস্যাল মিডিয়া ,গণমাধ্যমসহ ব্যাপক প্রতিক্রিয়া তৈরি হয় জেলার রাজনৈতিক অঙ্গনে। এনিয়ে সংসদ সদস্যের নিজ এলাকা কমলগঞ্জে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে আসছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

July 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031