সাভারে দুই লাশ: স্থানীয়দের দাবি ‘ডাকাতি’, পুলিশ বলছে ‘দুর্ঘটনা’

প্রকাশিত: ৭:৪৪ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০১৫

সাভারে দুই লাশ: স্থানীয়দের দাবি ‘ডাকাতি’, পুলিশ বলছে ‘দুর্ঘটনা’

ঢাকার সাভারে রাস্তার ওপর দুই সবজি ব্যবসায়ীর থেঁতলানো লাশ পাওয়া গেছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা এ ঘটনাকে ডাকাতি বললেও পুলিশের ধারণা, দুই ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে দুর্ঘটনায়।

বুধবার রাত ৩টার পর ভাকুর্তা এলাকার তুরাগ-মোগড়াকান্দা সড়কে পুলিশের তল্লাশি চৌকির কাছে এ ঘটনা ঘটে।

মিজান নামে স্থানীয় এক বাসিন্দা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, নিহত দুই ব্যবসায়ীর নাম মহসিন ও মাসুদ।

দুজনই সবজির ব্যবসা করতেন জানালেও তাদের বিস্তারিত পরিচয় জানাতে পারেননি মিজান।

স্থানীয়দের ভাষ্য, মহসিন ও মাসুদ পিক-আপ ভ্যানে করে সবজি নিয়ে যাওয়ার পথে রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে তুরাগ লোহার সেতুর দক্ষিণে ডাকাতের কবলে পড়েন।

ডাকাতরা ভ্যান আটকে দুই ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করে এবং টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায় বলে তাদের দাবি।

এর প্রতিবাদে এলাকাবাসী সকাল ৮টা থেকে এক ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। পরে পুলিশ গিয়ে তাদের সরিয়ে দেয়।

ডাকাতির অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কবীর হোসেন বলেন, দুই ব্যবসায়ী সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন বলেই তারা ধারণা করছেন।

“দুজনেরই মাথা থেঁতলে গেছে। মনে হয়, মাথার ওপর দিয়ে গাড়ির চাকা গেছে।”

তাহলে স্থানীয়রা ডাকাতির কথা কেন বলছে জানতে চাইলে এসআই কবীর বলেন, “একটি ঘটনা ঘটেছে, এখন লোকজন অনেক কথা বলতে পারে।”

স্থানীয়দের অভিযোগ, রাত ১০টার পর তল্লাশি চৌকিতে পুলিশের কোনো সদস্য ছিলেন না। এই সুযোগেই দুই ব্যবসায়ীকে খুন করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাভার মডেল থানার এসআই কামরুল ইসলাম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “রাত ৩টার দিকে আমরা দায়িত্ব পালন শেষে চলে আসি। পরে লাশের খবর পেয়ে আবার সেখানে যাই।”

এসআই কামরুলের ধারণা, দুই ব্যবসায়ী কোনো গাড়ির ওপরে ছিলেন। পেছন থেকে অন্য কোনো গাড়ির ধাক্কায় তারা পড়ে যান এবং পেছনের গাড়ি তাদের চাপা দিয়ে চলে যায়।

ছড়িয়ে দিন