সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে দুদকের কোন উদ্যোগ নেই

প্রকাশিত: ৪:০৫ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৫, ২০১৭

সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে দুদকের কোন উদ্যোগ নেই

 

 

পদত্যাগকারী প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে দুদকের কোন উদ্যোগ নেই। ‘অপেক্ষা করতে’ বলছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা মাহবুবে আলম দুজনেই । সিনহার বিদেশ যাওয়ার আগে তার দেওয়া বিভিন্ন বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় সুপ্রিম কোর্ট থেকে পাঠানো বিরল এক বিবৃতিতে তার বিরুদ্ধে ১১টি ‘সুনির্দিষ্ট অভিযোগের’ কথা বলা হয়েছিল ।

এর মধ্যে রয়েছে দুর্নীতি, অর্থ পাচার, আর্থিক অনিয়ম ও নৈতিক স্খলনের অভিযোগ, যা রাষ্ট্রপতির মাধ্যমে পেয়েছেন বলে সর্বোচ্চ আদালতে তার অন্য সহকর্মীরা জানিয়েছেন ।

বিচারপতি সিনহা নিজেই পদত্যাগ করায় তার বিরুদ্ধে যে ফৌজদারি অভিযোগ উঠেছে সেটা নিয়েই এখন প্রশ্ন ।সাবেক আইনমন্ত্রী শফিক আহমেদ বলেন, বিচারপতি সিনহার বিরুদ্ধে যে ১১টি অভিযোগ উত্থাপন করে সুপ্রিম কোর্ট বিবৃতি দিয়েছিল, তার ভিত্তিতেই দুর্নীতি দমন কমিশনের তদন্ত করা উচিৎ।
সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক এই সভাপতি আর বলেন,
এর ভিত্তিতে তদন্ত করতে কোনো বাধা নেই। কোনো ব্যক্তিই আইনের ঊর্ধ্বে নন, প্রধান বিচারপতিও নন।

তদন্তে তথ্য-উপাত্ত পাওয়া গেলে মামলা দায়ের করে সামনে অগ্রসর হওয়া যাবে। তখন নোটিস যাবে, সেক্ষেত্রে যে কেউ হোক।এক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনার গত সরকারের মন্ত্রী শফিক বলেন, যে ধরনের অপরাধ, তাতে তার বিচার হলে কিংবা দণ্ড হলে নানা প্রক্রিয়ায় তাকে কানাডা থেকেও ফেরত আনা সম্ভব।

বিচারপতি সিনহা অস্ট্রেলিয়ায় বড় মেয়ের কাছে কিছু দিন থেকে এখন কানাডায় ছোট মেয়ের কাছে আছেন। কানাডা যাওয়ার পথে সিঙ্গাপুর থেকে তিনি গত ১১ নভেম্বর পদত্যাগপত্র পাঠান; যা ইতোমধ্যে গৃহীত হয়েছে।

গত ১৩ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার আগে ফিরে আসার ঘোষণা দিয়ে বিচারপতি সিনহা বলেছিলেন, তিনি ক্ষমতাসীনদের আচরণে বিব্রত ও শঙ্কিত।