যেভাবে সক্রিয় হলাম রাজনীতিতে

প্রকাশিত: ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১, ২০২০

যেভাবে সক্রিয় হলাম রাজনীতিতে

সিমকী ইমাম খান

৪,

ছাত্র জীবনেই আমি রাজনীতি সচেতন হয়ে উঠেছিলাম। কিন্তু সক্রিয়ভাবে রাজনীতি করা আর হয়ে ওঠে নি । কিন্তু একদিন সিদ্ধান্ত নিলাম সরাসরি রাজনিতির সঙ্গে যুক্ত হবো। প্রেরণা ছিলেন দেশনেত্রী খালেদা জিয়া। তবে আমার রাজনীতিতে জড়ানোর একটা গল্প আছে । এবার সেই গল্পটা বলি ।
২০০০ সালের দিকে আমি ঢাকায় আসি । পড়াশোনা শেষ । সন্তানের মা। পেশায় আইনজীবী । আবার টুকটাক রিয়েল এস্টেট ব্যবসা করি । আমার এক বান্ধবী ছিল, সে পান্থপথে থাকতো । তার সঙ্গে আমার জীবনের কমবেশী অনেক কিছুই আমি শেয়ার করতাম । স্বাভাবিকভাবেই আমার বান্ধবীর কাছে আমার ব্যক্তিগত অনেক বিষয় নিয়ে আলাপ করেছি । একবার একটা বিষয়ে তার পরামর্শ চাইলাম । আগেই বলেছি, আমি রিয়েল এস্টেট ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ছিলাম । সেই সুবাদে একটি প্রতিষ্ঠানের কাছে আমার বেশ কিছু টাকা পাওনা ছিল । ওরা আমার টাকাটা দিতে গড়িমসি করছিল । শুনে আমার বান্ধবী জানালো , তার পরিচিত একজন হুজুর আছে । ওই হুজুরের কোন তদবির কিংবা দোয়া কালামে তুমি হয়তো তোমার পাওনা টাকাটা ফেরত পেতে পারো ।

আমার বান্ধবীর এক মেয়ে ছিল । সেও উত্তরায় থাকতো ।আমার বান্ধবীর মেয়ের এক বান্ধবীর মাধ্যমে হুজুরের ঠিকানা নিলাম এবং আমি হুজুরের ফোন নাম্বার সংগ্রহ করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে টিএসসির উল্টোদিকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হুজুরের সাথে দেখা করি ।


হুজুরের সঙ্গে দেখা হওয়ার পর হুজুর আমার দিকে বেশ কিছুক্ষণ রহস্যময় ভঙ্গিতে তাকিয়ে রইলেন । টুকটাক কথাবার্তা হচ্ছিল । এক পর্যায়ে হুজুর হঠাৎ আমাকে কিছু না বুঝে ওঠার আগেই বলে ফেললেন , আপনি রাজনীতি করেন ও ধর্ম প্রচার করেন । রাজনীতিতে আপনি ভবিষ্যতে অনেক ভালো করতে পারবেন । দেশ-বিদেশে আপনার নাম সুনাম ছড়িয়ে পড়বে এবং আপনার দ্বারা অনেক মানুষ উপকার পাবে, ইনশাআল্লাহ ।বিষয়টা আমাকে চমকে দিল ।অবাক হয়ে গেলাম ।

তারপর আমি বাসায় এসে গভীরভাবে বিষয়টা চিন্তা করলাম এবং সিদ্ধান্ত নিলাম আজ থেকে রাজনীতিতে সক্রিয় হবো ।
আমি আগেও শহীদ জিয়াউর রহমানের আদর্শের অনুসারী ছিলাম। তবে সক্রিয় ছিলাম না । কিন্তু হুজুরের কথা শোনার পর হঠাৎ করে আমার ভেতরে রাজনীতির প্রতি এক ধরণের আগ্রহ তৈরি হলো । যেহেতু শহীদ জিয়ার আদর্শকে বুকে ধারণ করে দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়া বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী চেতনাকে অনেক ঊর্ধ্বে নিয়ে গিয়েছেন সেহেতু শহীদ জিয়াকে অনুসরণ করে বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক আদর্শকে বুকে ধারণ করে রাজনীতিতে সক্রিয় হলাম ।

এরপর থেকে আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র নয়াপল্টনে অবস্থিত কেন্দ্রীয় কার্যালয় নিয়মিত যাতায়াত শুরু করি । বিএনপি’র উচ্চ পর্যায়ের নেতা নেত্রীদের থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যায়ে নেতা-নেত্রীদের সঙ্গে যোগাযোগ করি এবং সবার সাথে সুসম্পর্ক বজায় রেখে আমি দলের জন্য একজন সক্রিয় কর্মী হিসেবে আত্মনিয়োগ করি। দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার আদর্শকে বুকে ধারণ করে যে কোন দুঃসাহসীক পদক্ষেপ নিতে আমি বিন্দুমাত্র পিছপা হইনি ।
সব ধরণের মিটিং মিছিল আন্দোলন সংগ্রাম মানববন্ধনে যোগ দেই । আমি আমার ব্যক্তিগত সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেশমাতা বেগম খালেদা জিয়ার নির্দেশে স্বতঃস্ফূর্তভাবে সে সব কাজে অংশগ্রহণ করেছি। শুধু তাই নয় দলের স্বার্থে দেশের স্বার্থে দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দের প্রতিটি আদেশ-নির্দেশ আমি অক্ষরে অক্ষরে পালন করে রাজনীতি করার চেষ্টা করেছি ।
(চলবে)

এডভোকেট সিমকী ইমাম খান ঃ সদস্য, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটি

ছড়িয়ে দিন