সিলেটের ওসমানীনগর কাগজপুর ব্রিজটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ

প্রকাশিত: ৭:০৯ পূর্বাহ্ণ, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৫

সিলেটের ওসমানীনগর কাগজপুর ব্রিজটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ

এসবিএন নিউজ, ওসমানীনগর প্রতিনিধি সুজ্জল আহমদ:
ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের সিলেট জেলার ওসমানীনগর থানার কাগজপুরের ব্রিজটি মারাত্মকভাবে ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। ফলে যেকোনো সময় বড় ধরনের একটি দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে এবং বন্ধ হতে পারে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যাতায়াত ব্যবস্থা।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ব্রিজের ওপরের ভেলি ডেকিং ভেঙে গেছে। তাতে অসংখ্য ফাটল লক্ষণীয়। ব্রিজে ওঠা-নামার স্থানে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। অথচ দেখার কেউ নেই বললেই চলে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে সিলেট সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের সংশ্লিষ্ট এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ব্রিজের ওপর দিয়ে অতিরিক্ত মালবাহী ট্রাক চলাচলের কারণে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। ব্রিজের ধারণ ক্ষমতা রয়েছে ১৫ টন ওজনের গাড়ী চলাচলের। কিন্তু প্রতিটি ট্রাক ৩০ থেকে ৪০ টন মাল বুঝাই করে চলাচল করে। ফলে ব্রিজটি তার ভারসাম্য রক্ষা করতে পারছে না। তাই ব্রিজটি পুন:নির্মাণ ছাড়া কোন বিকল্প ব্যবস্থা নেই। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। এ খাতে বরাদ্দ না থাকায় কাজ সম্পাদন করা যাচ্ছে না।’

সিলেটের প্রবেশপথে ওসমানীনগর অংশে কাগজপুর ব্রিজ। ব্রিজটি মহাসড়ক প্রশস্তকরণের সময় নির্মাণ করা হয়েছিল। পাশে পরিত্যক্ত অবস্থায় রয়েছে পুরাতন ব্রিজ। অতিরিক্ত মালবাহী ট্রাক চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও ট্রাকগুলো অদ্যবধি চলাচল করছে। চলতি বছরের জুনের শেষের দিকে ব্রিজের ভেলি ডেকিং ভেঙে গেলে গাড়ি পারাপারে দেখা দেয় বিরাট সমস্যা। খবর পেয়ে সিলেট সড়ক ও জনপদ (সওজ) এর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নতুন ভেলি ডেকিং লাগিয়ে ব্রিজটি কোনরকম মেরামত করে গাড়ি চলাচলের উপযোগী করে তুলেন। এরপর এটি আর সংস্কার করা হয়নি। সম্প্রতি ভেলি ডেকিংয়ে ভাঙন আরো মারাত্মকভাবে দেখা দিলেও কর্তৃপক্ষের কোনো নজরদারি নেই।

বর্তমানে ব্রিজের দুই পাশ আগের মতো উঁচু হয়ে আছে। অন্যদিকে ব্রিজের মূল অংশ নিচের দিকে দেবে গেছে। ব্রিজের দুই মাথায় বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। প্রায় সময় গাড়ি বিকল হয়ে ব্রিজের ওপর আটকা পড়ে অসহণীয় যানজটের সৃষ্টি হয়, ঘটছে দুর্ঘটনাও। ভেলি ডেকিং ভেঙে ধারালো চাকুর মতো দাঁড়িয়ে আছে। প্রায় সময় সতর্কতার জন্য টানানো হয় লালপতাকা। প্রতিদিনই দূরপাল্লার গাড়ি বিকল হয়ে ব্রিজের ওপর দাঁড়িয়ে থাকে দীর্ঘ সময়। সম্প্রতি ব্রিজের ওপর উঁচু ঢেউয়ে ধাক্কা খেয়ে একটি গাড়ি ব্রিজের রেলিং ভেঙে নিচে পড়ে যায়। এখনো রেলিংয়ের ভাঙা স্থান মেরামত করা হয়নি। অন্যদিকে ব্রিজের পাশে পথচারীদের চলাচলের ফুটপাতও ভেঙে গেছে। গাড়ি ব্রিজের ওপর ওঠামাত্র ঝাঁকুনি শুরু হয়। ব্রিজটি পুন:নির্মাণ না করা হলে যেকোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশংকা করা যাচ্ছে। ফলে বন্ধ হয়ে যেতে পারে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের যোগাযোগ ব্যবস্থা।

এলজিইডি সিলেট-এর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী অসিনাথ ঘোষ এসবিএন-কে বলেন, এ ব্যাপারে ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করার জন্য সিলেট সড়ক ও জনপদ (সওজ) এর সিলেটের প্রকৌশলীকে রিপোর্ট দেয়ার কথা বলেছিলাম। সেটি কোন অবস্থায় আছে জানি না, খোজ নিয়ে দেখতে হবে।’

ছড়িয়ে দিন