সিলেটে ব্যাটারি চালিত রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ

প্রকাশিত: ৫:৫০ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ২২, ২০১৬

সিলেটে ব্যাটারি চালিত রিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ

এসবিএন ডেস্ক: সিলেটে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচল সংক্রান্ত রিট খারিজ করেছে হাইকোর্ট। গত ১৯ জানুয়ারী সুপ্রীম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর ও বিচারপতি এসএম মজিবুর রহমানের যৌথ বেঞ্চ শুনানী শেষে সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির রিট খারিজ করে দেন। ফলে সিলেট নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা আর চলাচল করতে পাররে না।

সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবি এ্যাডভোকেট মো. মোস্তাক আহমদ জানান, সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির ২০১২ সালে করা রিট পিটিশন নং ১৩৯৯৬ শুনানী শেষে সিলেটে ব্যাটারিচালিত চালিত রিক্সা চলাচলে স্থগিতাদেশ খারিজ করে দিয়েছেন। ফলে সিলেটে এ ধরণের রিক্সা চলাচলের কোনো বৈধতা রইলো না।

জানা গেছে, ২০১২ সালে সিলেট সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. ওলিউর রহমান সিলেট নগরীতে ব্যাটারিচালিত রিক্সা চলাচলে নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে রিট করেন। রিটের প্রেক্ষিতে আদালত স্থানীয় সরকার সচিব, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র, সিলেটের জেলা প্রশাসক ও সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের প্রতি রুল জারি করেন।

পরবর্তীতে মামলায় পক্ষ হন সিলেট ব্যাটারি চালিত অটোরিক্সা মালিক-শ্রমিক কল্যান পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আবু বক্কর সিদ্দিক, সিলেট অটোরিক্সা ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো. আবু তাহের ও সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির সভাপতি এমএএম শাহজাহান।

সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির সভাপতি এমএএম শাহজাহান বলেন, গত ১৯ জানুয়ারী শুনানী শেষে হাইকোর্টের যৌথবেঞ্চ সিলেট ব্যাটারি চালিত রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির রিট খারিজ করে দেন। ফলে সিলেটে ব্যাটারি চালিত রিক্সা চলাচল আর করতে পারবে না।

সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির প্রধান উপদেষ্ঠা সহিদুল হোসেন আহমদ মামুন বলেন, আদালতে রিট খারিজ হওয়ায় সিলেটে ব্যাটারিচালিত রিক্সা এখন থেকে অবৈধ। এ রিক্সা মোটরযান আইন কিংবা সিটি করপোরেশনের আইন অনুযায়ী রুট পারমিট পাওয়ার যোগ্য নয়। কারণ যান্ত্রিক যানবাহনের পারমিট বিআরটিএ দিতে পারে। সিটি করপোরেশন কিংবা পৌরসভা এ ধরণের যান্ত্রিক রিক্সার পারমিট দিতে পারে না।

সিলেট রিক্সা মালিক সমাজ কল্যান সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইজার উদ্দিন আহমদ জানান, ব্যাটারিচালিত রিক্সার গঠন ও গতিতে সামঞ্জস্য না থাকায় বিভিন্ন সময় দূর্ঘটনায় সাধারণ মানুষ আহত হন। গত ৯ জানুয়ারী সিলেট নগরীর কুমারপাড়ায় ব্যাটারিচালিত রিক্সা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সকালের খবরের স্টাফ রিপোর্টার দিপু সিদ্দিকী ও বাংলাভিশনের ক্যামেরাপার্সন বদরুর রহমান বাবরের মোটর সাইকেলে ধাক্কা দিলে তারা গুরুতর আহত হন। একইভাবে প্রতিদিনই ব্যাটারিচালিত রিক্সা নগরীতে দূর্ঘটনা ঘটাচ্ছে। সমিতির ব্যানারে সিলেট নগরীতে প্রায় ৪ হাজার রিক্সা ছাড়া হয়।

সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ বলেন, ব্যাটারিচালিত রিক্সা সংক্রান্ত উচ্চ আদালতে একাধিক রিট রয়েছে। আদালত থেকে রিট খারিজের কোনো কাগজ এখনো পাইনি। আদালতের নির্দেশনা পেলে আমরা সাথে সাথে এ্যাকশনে যাবো।

এ ব্যাপারে সিলেট সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী এনামুল হাবীব বলেন, এ সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনা আমরা এখনো পাইনি।

উল্লেখ্য গত বছরের ২১ মে সিলেটে প্রাক বাজেট আলোচনায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত ব্যাটারি চালিত রিক্সার বিরুদ্ধে জোরালো অভিযানের নির্দেশ দেন। এর আগে ২০১৪ সালের ৭ নভেম্বর যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সিলেট সফরে এসে বিমানবন্দর সড়কে ও চন্ডিপুলে ১০টি অটোরিক্সা আটক করে এই যানটি নিষিদ্ধ করেছিলেন। এছাড়াও সিলেট সিটি করপোরেশনের (বরখাস্তকৃত) মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীও ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সার বিরুদ্ধে অবস্থান নেন।

ছড়িয়ে দিন