হবিগঞ্জে স্কুলছাত্র হত্যা: ৫ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৭

হবিগঞ্জে স্কুলছাত্র হত্যা: ৫ জনের যাবজ্জীবন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জে স্কুলছাত্র তৌকির হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এই মামলায় ৮ জনকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- শহরের হেলাল উদ্দিন তুর্কি (১৮), রনি (১৯), সাদ্দাম (১৮) ও নিয়াজ (১৫) এবং আক্তার মিয়া (২০)।

বুধবার হবিগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মাফরোজা পারভীন এই রায় দেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, শহরের ইনাতাবাদ এলাকার বাসিন্দা আব্দুল বারিকের ছেলে হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র কায়সার আহমেদ তৌকিরের কাছে আসামিদের কয়েকজন বিভিন্ন সময় টাকা দাবি করতো। অনেক সময় তারা টাকা ছিনিয়েও নিতো। ২০০৯ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ঈদ উপলক্ষে বাণিজ্যিক এলাকার একটি মার্কেটে কেনাকাটা করতে যায় তৌকির। এ সময় আসামিদের কয়েকজন তার কাছে ৫ হাজার টাকা দাবি করে। সে ওই টাকা দিতে অস্বীকার করে বিষয়টি তার বাবাকে জানায়। তিনি তাদের অভিভাবকদের বিষয়টি সম্পর্কে অবহিত করেন। এতে রনি ও হেলাল উদ্দিন তুর্কি ক্ষিপ্ত হয়ে তৌকিরকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। আহত তৌকিরকে ঢাকায় নেয়ার পথে রাত ৮টার দিকে মারা যায়।

এ ঘটনায় নিহতের বাবা আব্দুল বারিক বাদী হয়ে ১২ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। তদন্তকালে এজাহারভূক্ত জিয়াউর রহমান নামে একজনকে বাদ দিয়ে আরও দুইজনকে সংযুক্ত করে মোট ১৩ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয়া হয়। তাদের মাঝে রনি, তুর্কি ও সাদ্দাম ঘটনার পর থেকেই পলাতক আছেন। অপর আসামী ইদু মিয়া, আক্তার মিয়া, মোশাররফ, নিয়াজ, উজ্জল, শাহনুর, আব্দুল গফুর, নানু মিয়া, টিটু ওরফে তাহির আলী ও রিপন আহমেদ বিভিন্ন সময় গ্রেফতার হয়ে কারাভোগ করেন। পরে তারা জামিনে মুক্তি পান। রায় ঘোষণার সময় পলাতক ৩ জন ছাড়া বাকিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।