ঢাকা ১২ই জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ২৮শে আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৬ই মহর্‌রম ১৪৪৬ হিজরি


শিশুদের নিয়ে পুলিশযাদুঘরে এক অনুষ্ঠানে পুনাক সভানেত্রী

redtimes.com,bd
প্রকাশিত মার্চ ১০, ২০২১, ১১:০১ অপরাহ্ণ
শিশুদের  নিয়ে পুলিশযাদুঘরে এক  অনুষ্ঠানে পুনাক সভানেত্রী

তৌহিদা নূপুর  

শিশুদের নিয়ে পুলিশ যাদুঘরে এক অনুষ্ঠানে পুনাক সভানেত্রী

তোমরা তো বিজয়ের স্বপ্ন দেখ। জীবন সমুদ্রে বিজয়ী হতে চাও। তবে বাংলাদেশকে চিনে নাও; বিজয়ের মহানায়ককের চেতনাকে জেনে নাও। বুঝে নাও বাঙ্গালী জাতির গর্ব, অহংকারের মহান নেতাকে। যতদিন বঙ্গবন্ধুর চেতনা, তাঁর গুনাবলি বুকের মধ্যে থাকবে, ততদিন তোমরা হারবে না, পরাজয় হবে না তোমাদের, আমাদের কারও।
প্রায় একশ’ শিশুকে সাথে নিয়ে পুলিশ যাদুঘরে এক আনন্দঘন অনুষ্ঠানে একথা বলেন পুনাক সভানেত্রী জীশান মীর্জা।
মহান স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী এবং বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে শিশু কিশোরদের নিয়ে এক আনন্দঘন পরিবেশে সময় কাটান পুনাক সভানেত্রী। সাথে ছিলেন পুনাকের অন্যান্য নেত্রীবৃন্দ।
গতকাল মুক্তিযুদ্ধের প্রথম প্রতিরোধের স্মৃতিবিজড়িত রাজারবাগ পেয়েছিল নতুন প্রাণ। শিশুরা হেসেছে, খেলেছে, বিস্ময়ভরা চোখে ঘুরে ঘুরে দেখেছে পুলিশ জাদুঘর। পুরণো রাইফেল, পুরণো পোষাক, গৌরবের গল্পগাঁথায় নিমগ্ন হয়েছিল শিশুরা। বিস্ময় ভরা দুচোখ ছিল, ছিল কৌতুহলি প্রশ্ন। যেন প্রত্যেকে খুঁজেছে পূর্বপুরুষের দূর্জয়, দূর্ণিবার আখ্যান।
কিভাবে ওয়ারলেস -এ বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা এলো? কিভাবে সেই ভাষণ ছড়িয়ে দেয়া হলো? কিভাবে পুলিশ গড়ে তুললো শক্ত প্রতিরোধ? কেন পুলিশ বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিল? আরও কত প্রশ্ন!
পুনাক সভানেত্রী তাদের প্রশ্ন মনোযোগ দিয়ে শোনেন, উত্তর দেন। ছোট্ট শিশুদের বড় প্রশ্নও ছিল। বঙ্গবন্ধুর ডাকে কেন সবাই সাড়া দিল? মুক্তির জন্য, স্বাধীনতার জন্য জাতিকেই যে জাগিয়ে তুলেছিলেন, মাতোয়ারা করেছিলেন, তাঁর কথায় মানুষ অনুপ্রাণিত হয়েছিল সেই ঘটনাগুলো তুলে ধরেণ পুনাক সভানেত্রী। সাথে এটাও জানিয়ে দেন, বঙ্গবন্ধুই একমাত্র নেতা, যাঁর কথায় অনুপ্রাণিত হয়ে মানুষ নিজেদের জীবন পর্যন্ত উৎসর্গ করেছিলেন। তাঁকে জেলখানায় আটক করেছিল পাকিস্তানীরা, কিন্তু আটকাতে পারেনি তাঁর প্রেরণা। তাঁর প্রেরণাতেই লড়াই করেছে পুরো জাতি। মুক্ত করেছেন আমাদেরকে। তাঁরই স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ী হবো, বিশ্বের দরবারে মাথা উঁচু করে দাঁড়াবো আমরাই।

সংবাদটি শেয়ার করুন

July 2024
S M T W T F S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031