৮টি ক্যাটাগরিতে ৮জন গণমাধ্যমকর্মীকে পুরস্কার দেবে পিআইবি এটুআই

প্রকাশিত: ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২০, ২০২১

৮টি ক্যাটাগরিতে ৮জন গণমাধ্যমকর্মীকে পুরস্কার দেবে পিআইবি এটুআই

ডিজিটাল বাংলাদেশ ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক নাগরিক সেবা কার্যক্রমের যে কোনো বিষয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত-প্রচারিত প্রতিবেদনের জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেছে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ (পিআইবি) ও সরকারের এটুআই। মোট আটটি ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার দেওয়া হবে। প্রকাশিত অথবা প্রচারিত প্রতিবেদন, ফিচার এবং আলোকচিত্র আহ্বান করা হয়েছে সাংবাদিকদের কাছ থেকে।

প্রতিযোগিতায় যে আটটি ক্যাটাগরিতে একজন করে মোট আটজন গণমাধ্যমকর্মীকে পুরস্কার দেওয়া হবে, সেগুলো হলো- রাজধানী ঢাকা থেকে প্রকাশিত ইংরেজি ও বাংলা জাতীয় দৈনিক, অনলাইন সংবাদপত্র, ঢাকার বাইরে থেকে প্রকাশিত আঞ্চলিক সংবাদপত্র (ইংরেজি ও বাংলা), টেলিভিশন, বেতার, আলোকচিত্র ও নারী সাংবাদিক ক্যাটাগরি।

ডিজিটাল বাংলাদেশ ও তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক নাগরিক সেবা কার্যক্রমের যেসব সংবাদ, ফিচার ও আলোকচিত্র আহ্বান করা হয়েছে, তা ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের ১৫ মে-এর মধ্যে প্রকাশিত-সম্প্রচারিত হতে হবে। একজন গণমাধ্যমকর্মী মোট দুটি ক্যাটাগরিতে আবেদন করতে পারবেন।

যেভাবে আবেদন করবেন

দৈনিক সংবাদপত্রের ক্ষেত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন/ফিচারের কপি জমা দিতে হবে। এছাড়া ইলেকট্রনিক মিডিয়ার ক্ষেত্রে দেশীয় টিভি চ্যানেলসমূহে প্রচারিত প্রতিবেদন সিডিতে রূপান্তর করে পূর্ণাঙ্গ স্ক্রিপ্টসহ জমা দিতে হবে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের জন্য সংবাদপত্রে প্রকাশিত প্রতিবেদন/ফিচারের কপি সম্পাদক/বার্তা সম্পাদক ও টিভি চ্যানেলের ক্ষেত্রে সিইও/বার্তা বিভাগের প্রধান কর্তৃক সত্যায়িত করে জমা দিতে হবে। আলোকচিত্র বা ফটোগ্রাফির ক্ষেত্রে প্রকাশিত কিংবা অপ্রকাশিত আলোকচিত্র জমা দিতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে স্থান, আলোকচিত্রের সময় এবং ক্যাপশনসহ পূর্ণাঙ্গ বিবরণ উল্লেখ করতে হবে। তবে ছবির রেজুলেশন ১৯২০X১০৮০ পিক্সেলের নিচে গ্রহণযোগ্য নয়।

যে ঠিকানায় আবেদন পাঠাবেন

আগামী ৩১ মে-এর মধ্যে প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশের (পিআইবি) মহাপরিচালক বরাবর জীবনবৃত্তান্ত, পাসপোর্ট সাইজের চার কপি ছবিসহ পাঠাতে হবে। ঠিকানা, ৩ সার্কিট হাউস রোড, ঢাকা-১০০০। একই সঙ্গে প্রতিবেদন/ফিচার/আলোকচিত্রের কপি সংযুক্ত করে এই ই-মেইল piba2imediaaward2021@gmail.com ঠিকানায় পাঠাতে হবে। লেখা শেষে স্পষ্টাক্ষরে নাম-ঠিকানা, ফোন/মোবাইল নম্বর, ই-মেইল নম্বর উল্লেখ থাকতে হবে। এ ছাড়া খামের ওপর পুরস্কারের নাম ও বিষয় উল্লেখ থাকতে হবে।

বিজয়ীরা পুরস্কার হিসেবে পাবেন ৭৫ হাজার টাকা (ট্যাক্স অন্তর্ভুক্ত), ক্রেস্ট ও সনদপত্র। আগ্রহী আবেদনকারীরা যে কোনো প্রয়োজনে ০১৯৮৪৩০২৬৮৯, ০১৯১৩৩৯৪৭৯৪ নম্বরে ফোন দিয়ে সহযোগিতা নিতে পারবেন।