৯ হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে সৌদি আরব যাচ্ছিলেন তিনি

প্রকাশিত: ৩:৩৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

৯ হাজার পিস ইয়াবা নিয়ে সৌদি আরব যাচ্ছিলেন তিনি

রাজধানীর হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ৮ হাজার ৯৫০ পিস ইয়াবাসহ এক যাত্রীকে আটক করেছে বিমানবন্দর আর্মড পুলিশ। সৌদিতে পাচারের উদ্দেশে এসব ইয়াবা নিয়ে আসে সাদ্দাম নামের এক যাত্রী। আটক সাদ্দামের বাড়ি কুমিল্লার কোটবাড়িতে।

 

বুধবার (২৭ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর বিমানবন্দরের এক সংবাদ সম্মেলনে এপিবিএন এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) জিয়াউল হক এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

 

পুলিশ সুপার বলেন, সালাম এয়ারের ফ্লাইটে সৌদি আরবের দাম্মামের উদ্দেশ্যে যেতে সাদ্দাম ভোর ৬টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসেন। প্রথমে ঢাকা থেকে ওমানের মাসকাট এবং কানেন্টিং ফ্লাইটে সৌদি আরবের দাম্মাম যাওয়ার কথা ছিল।

 

সাদ্দাম এসব ইয়াবা কুমিল্লার এক ব্যক্তির কাছ থেকে নিয়েছেন। ওই ব্যক্তিদের একটি চক্র তাকে সৌদি আরবে যাওয়ার টিকিট বা ভিসা করে দিয়েছে বলে জানান তিনি।

 

জিয়াউল হক বলেন, আসামিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আমরা জানতে পারি, এই ইয়াবাগুলো ২০০ থেকে ৩০০ টাকা করে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। এগুলো সৌদিআরবে নিতে পারলে সেখানে প্রতি পিস এক থেকে দেড় হাজার টাকায় বিক্রি করতেন। সেখানে প্রতি পিস ইয়াবাতে তার ৮শ থেকে ১৩শ টাকা করে লাভ থাকতো।

 

সাদ্দামকে জিজ্ঞাসাবাদ করে আর্মড পুলিশ জানায়, এই ইয়াবাগুলো বিক্রির পর তিনিও একটি লাভ্যাংশ পেতেন। ইয়াবাগুলো নিয়ে সৌদিআরবের দাম্মামের এক প্রবাসীর কাছে হস্তান্তর করার কথা ছিলো তার।

 

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) জিয়াউল হক আরও বলেন, আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদে আমরা ইয়াবা পাচার চক্রের সদস্যদের বেশকিছু নাম জানতে পেরেছি। তদন্ত সাপেক্ষে এই চক্রের বাকি আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান পুলিশ সুপার।

 

ইয়াবা পাচার সাদ্দামের এটাই প্রথম নয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমরা প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছি। ২০২০ সালে আসামি সাদ্দাম ইয়াবা পাচারের সময় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল। সেই মামলায় তিনি বর্তমানে জামিনে রয়েছেন। এরই মধ্যে ইয়াবার বড় এই চালান তিনি সৌদি আরবে পাচার করতে যাচ্ছিলেন।

ছড়িয়ে দিন